আওয়ামীলীগের মিত্র ১৪ দল কই?

বিশেষ প্রতিনিধিঃ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের ম্যুরাল ইস্যুতে ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগ যখন বিব্রতকর অবস্থায় তখন তার অন্যতম মিত্র ১৪ দল পাশে নেই।জানা গেছে, মোহাম্মাদ নাসিমের জীবদ্দশায় সর্বশেষ ১৪ দলের সভা হয়েছিল, তার পরে আর কোনও সভা হয়নি।কবে সভা হবে, কেউ জানে না। ১৪ দলের শরিক দল জাসদ (ইনু) সাধারন সম্পাদক শিরিন আখতার বলেন, কোথায় ১৪ দল, এখন তো নিস্ক্রিয়, কবে সর্বশেষ কবে মিটিং হয়েছে তাও মনে করে দেখতে হবে।

জাসদ (ইনু) প্রধান হাসানুল হক ইনু বঙ্গবন্ধুর মুর‍্যাল ইস্যুতে আওয়ামীলীগের পাশে সমর্থনে থাকলেও ১৪ দলগতভাবে কোনও ভুমিকা নেই। শনিবার সকালে সেল ফোনে আলাপকালে হাসানুল হক ইনু এমপি এই প্রতিবেদককে বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর মুর‍্যাল নিয়ে কটুক্তিকারি ইসলামী দলগুলির উদ্দেশ্যে বলেছে, জ্ঞান পাপি। ওরা ধর্মের নামে ব্যবসা করছে, ধর্মের অপব্যখ্যা দিচ্ছে।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের ভাস্কর্য বা মুরাল আর মূর্তি পুজা এক নয়। আলেমরা এসব মিথ্যা বলে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করছে।তিনি বলেন, তথাকথিত এসব আলেম, মাশায়েখ, পীররা এদেশের সমাজ, কৃষ্টি, সংস্কৃতিকে ধ্বংস করতে চায়। ৭১ এ ওরা এমনভাবে ধ্বংস করতে চেয়েছিল বুদ্ধিজীবী হত্যার মধ্য দিয়ে। সেই পরাজিত শক্তি আবারও মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে, এদেরকে রুখার বিকল্প নেই। হাসানুল হক ইনু বলেন, ৭১ এর চেতনায় বিশ্বাসী, মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সমস্ত রাজনৈতিক দল ও শতিকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এদের মোকাবলা করে সমূলে ধ্বংস করার আহবান জানান।

বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারন সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা এমপি বলেছেন, ১৪ দল দীর্ঘদিন ধরে নিস্ক্রিয়। কেন নিস্ক্রিয় এমন প্রশ্নে সাবেক ছাত্রনেতা বাদশা বলেন, আওয়ামীলীগকে জিজ্ঞাসা করুন। ওরা আমাদের কাউকে গনার মধ্যে রাখে না। বাদশা জানান, মাঠে ১৪ দল নেই, টোটালি নিস্ক্রিয়। কিছুটা ক্ষোভের সাথে বাদশা জানান, হেফাজতের বিরুদ্ধে স্টেটমেন্ট দেবে এমন নেতা আওয়ামীলীগে নেই। মোহাম্মাদ নাসিম ১৪ দলের সমন্বয়কারী থাকা কালে এই জোটের প্রতি তার একটা মায়া বা কিছু করার ইচ্ছা ছিল, এখন আওয়ামীলীগের নেতাদের মধ্যে তাও নেই। উল্লেখ্য, আওয়ামীলীগের সভাপতি মণ্ডলীর প্রবীণ সদস্য সাবেক মন্ত্রী আমির হোসেন আমু এখন ১৪ দলের প্রধান সমন্বয়কারী। এই ব্যাপারে আমির হোসেন আমুকে ফোন দিলেও তিনি ফোন না ধরায় তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *