মেলবোর্নে রাহানের অধিনায়কোচিত সেঞ্চুরি

ক্যাপ্টেন লিডিং ফ্রম দ্যা ফ্রন্ট! অজিঙ্কা রাহানের ধুরন্ধর ক্রিকেট মস্তিস্ক মেলবোর্ন দেখেছিল প্রথম দিন অধিনায়ক হিসেবে। এবার ব্যাট হাতে অজি বোলারদের একাই সামলে নিলেন তিনি। দুরন্ত সেঞ্চুরি করে দলকে এনে দিলেন লিড। মেলবোর্ন একাই মাতিয়ে দিলেন রাহানে রবিবার। কোহলির অনুপস্থিতিতে ব্যাটিংকে একাই টানলেন তিনি।

ব্যাট হাতে বিশেষ রান করতে পারছিলেন না রাহানে। গত তিন বছর মাত্র ২টি টেস্ট শতরান রয়েছে তার। এই ২টি এসেছে গত বছর আগস্ট এবং অক্টোবরে। তার পর থেকে রানের খরা চলছিল রাহানের ব্যাটে।

দিনের শেষে রাহানে অপরাজিত ১০৪ রানে। ক্যারিয়ারের ১২তম শতরান করার পথে নিজের ইনিংসে এখনো পর্যন্ত ১২টি বাউন্ডারি হাঁকিয়েছেন। ব্যাটসম্যান রাহানের সৌজন্যেই ভারত মেলবোর্ন টেস্টের দ্বিতীয় দিনের শেষে মাঠ ছাড়ল স্কোরবোর্ডে ২৭৭/৫ তুলে। রবীন্দ্র জাদেজার সঙ্গে ষষ্ঠ উইকেটে ১০৪ রানের পার্টনারশিপে ভারত দ্বিতীয় দিনেই জয়ের সুবাস পেয়ে গেল। আপাতত ৮২ রানের লিড নিয়ে রাতে নিশ্চিন্তে ঘুমাতে যাবে। রাহানের সঙ্গে ব্যাট হাতে ভরসা জুগিয়ে গেলেন জাদেজাও। তিনি অপরাজিত ৪০ রানে।

অথচ দিনের শুরুতেই ভয়ঙ্কর হওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন টেস্টের একনম্বর পেসার প্যাট কামিন্স। ৩৬/১ থেকে দিন শুরু করে গিল এবং পূজারা ভারতীয় ইনিংসকে দারুণভাবে টানছিলেন। অভিষেকেই হাফসেঞ্চুরির দিকে এগোচ্ছিলেন গিল। তবে গিলকে ফেরান কামিন্স। ঠিক তার পরের ওভারেই পূজারাকেও ফেরান তিনি।

পূজারা সেই সময় ৬৯ বলে ১৭ রানে ব্যাটিং করছিলেন। সেই সময়েই ভারতীয় ইনিংসের ২৪তম ওভারে কামিন্সের আউটসুইংগারে ঠকে যান। ব্যাটের কানায় লেগে বল পিছনে চলে যায়। এডিলেডের দ্বিতীয় ইনিংসে পূজারাকে যেভাবে আউট করেছিলেন এমসিজির আউট যেন ঠিক তার কার্বন কপি।

পূজারা সেই সময় ৬৯ বলে ১৭ রানে ব্যাটিং করছিলেন। সেই সময়েই ভারতীয় ইনিংসের ২৪তম ওভারে কামিন্সের আউটসুইংগারে ঠকে যান। ব্যাটের কানায় লেগে বল পিছনে চলে যায়। এডিলেডের দ্বিতীয় ইনিংসে পূজারাকে যেভাবে আউট করেছিলেন এমসিজির আউট যেন ঠিক তার কার্বন কপি।

৯০/৩ স্কোর রেখে লাঞ্চে যায় ভারত। দ্বিতীয় সেশনের শুরুতেই ভারত হারায় হনুমা বিহারীকে। তারপর পন্থের সঙ্গে ছোট পার্টনারশিপ খেলেন রাহানে। তবে ক্রিজে বেশিক্ষণ টেকেননি পন্থ। ব্যক্তিগত ২৯ রানের মাথায় পন্থকে ফেরান মিচেল স্টার্ক। তারপর পুরোটাই জাদেজা আর রাহানের যুগলবন্দির কাহিনী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *