প্রথম আলোর কাছে ক্ষতিপূরণ চেয়ে রেসিডেন্সিয়াল কলেজের রিট

অনলাইন ডেস্কঃ

ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল মডেল কলেজের মাঠে দৈনিক প্রথম আলোর সাময়িকী ‘কিশোর আলোর’ অনুষ্ঠানে ওই কলেজেরই ছাত্র নাইমুল আবরার রাহাতের (১৫) মৃত্যুর ঘটনায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটির সুনাম ক্ষুণ্ণ হয়েছে দাবি করে ১০০ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ চেয়ে হাইকোর্টে একটি রিট দায়ের করা হয়েছে। এর মধ্যে ৫০ কোটি টাকা কলেজের এবং ৫০ কোটি টাকা নিহত আবরারের পরিবারের জন্য ক্ষতিপূরণ দাবি করা হয়েছে।

শনিবার (১৭ জুলাই) রিট দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রিটকারীর আইনজীবী এস এম আব্দুর রউফ। ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল মডেল কলেজের অধ্যক্ষের পক্ষে ব্রিগেডিয়ার কাজী শামীম ফরহাদ আবেদনটি করেন বলে জানান তিনি।

এস এম আব্দুর রউফ বলেন, শিক্ষার্থী আবরারের মৃত্যুর ঘটনায় কলেজের সুনাম ক্ষুণ্ন হয়েছে। কেননা, কলেজ কর্তৃপক্ষ সঙ্গে প্রথম আলোর যে চুক্তি হয়েছিল তাতে কার কী দায়দায়িত্ব তা উল্লেখ ছিল। সেক্ষেত্রে বৈদ্যুতিক ব্যবস্থার দায়িত্ব ছিল প্রথম আলোর আয়োজকদের। এ কারণে কলেজ কর্তৃপক্ষকে ৫০ কোটি এবং আবরারের পরিবারকে ৫০ কোটি টাকাসহ মোট ১০০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণের প্রদানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিটটি দায়ের করা হয়েছে।

রিট আবেদনটি বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে শুনানির জন্য নির্ধারিত রয়েছে বলেও রিটকারী আইনজীবী জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ১ নভেম্বর ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল মডেল কলেজে কিশোর আলোর অনুষ্ঠানে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে নাইমুল আবরার রাহাত নামে নবম শ্রেণির এক ছাত্রের মৃত্যু হয়। ওই দিন বিকেলে বিদ্যুতায়িত হওয়ার পর আবরারকে মহাখালীর ইউনিভার্সেল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এরপর ৬ নভেম্বর নাইমুল আবরারের বাবা মজিবুর রহমান দৈনিক প্রথম আলোর সম্পাদক ও প্রকাশক এবং কিশোর আলোর প্রকাশক মতিউর রহমানের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন। তার বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ৩০৪ (ক) ধারায় অবহেলা জনিত মৃত্যুর অভিযোগ আনা হয়।

এ মামলার তদন্ত প্রতিবেদনে নাইমুল আবরারের মৃত্যুতে কিশোর আলো কর্তৃপক্ষের অবহেলার প্রমাণ পাওয়া গেছে বলে উল্লেখ করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *