শ্রীলেখার জীবনে সবচেয়ে বড় দুই আক্ষেপ

অনলাইন ডেস্কঃ

সবসময় ভক্ত ও অনুরাগীদের কাছাকাছি থাকতে ভালবাসেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। সোশ্যাল মিডিয়ায় এজন্যই ব্যাপক সক্রিয় দুই বাংলার জনপ্রিয় এ অভিনেত্রী।

সোশ্যাল মিডিয়ায় অনুরাগীদের নানা উত্তর দেন অকপটে।

শুক্রবার ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিওর মাধ্যমে অনুরাগীদের প্রশ্নের উত্তর দিলেন শ্রীলেখা। মূলত দু’টি প্রশ্ন করা হয় তাকে। একজন অনুরাগী জানতে চেয়েছিলেন, অভিনেত্রী না হলে জীবনে কোন পেশা বেছে নিতেন শ্রীলেখা। উত্তরে শ্রীলেখা জানান, বিজ্ঞাপন এবং জনসংযোগে তার ফার্স্ট ক্লাস ডিগ্রি আছে। তাই অভিনেত্রী না হলে বিজ্ঞাপন সংস্থায় কপি রাইটার হিসেবে কাজ করতেন তিনি।

দ্বিতীয় প্রশ্ন ছিল, শ্রীলেখার জীবনে সব চেয়ে বড় আক্ষেপ কী? এর উত্তরে আবেগে আপ্লুত শ্রীলেখা মিত্র বলেন, “আমার প্রিয় বন্ধুর মৃত্যুটাকে যদি আটকাতে পারতাম এবং আমার মায়ের মৃত্যুর সময়ে আমি মায়ের পাশে ছিলাম না।”

জীবনের সব আক্ষেপ, পাওয়া-না পাওয়া যেন কাজের মধ্য দিয়েই ভুলে থাকতে চাইছেন অভিনেত্রী।

আদিত্য বিক্রম সেনগুপ্তের পরিচালয়ায় শ্রীলেখা অভিনীত ‘ওয়ান্স আপঅন আ টাইম’ জায়গা করে নিয়েছে ভেনিসের চলচ্চিত্র উৎসবে। ছবি নিয়ে প্রশংসা করেছেন অনীক দত্ত, সুমন ঘোষ, সুমন মুখোপাধ্যায়, বৌদ্ধায়ন মুখোপাধ্যায়, ভরত কল, ইন্দ্রাশিস আচার্য, শুভ্রজিৎ মিত্র সহ বাংলা ছবির বহু বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব। অভিনয়ের পাশাপাশি আবার পরিচালনা এবং সমাজসেবা নিয়েও ব্যস্ত শ্রীলেখা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *