অন্য এক সালাম মুর্শিদী

বিশেষ প্রতিনিধিঃ

আব্দুস সালাম মুর্শিদী, এক সময়ের দেশ বরেণ্য ফুটবল তারকা। জোসি ও ফুটবলার বাদল রায়কে নিয়ে সালাম মুর্শিদী ৮০ র দশকে ছিলেন নাম্বার ওয়ান ফুটবল তারকা। মোহামেডানের স্টপার ব্যাক আবুল কিংবা গোলকিপার মহসিনের লম্বা কিক জোসি কিংবা বাদল রায়ের পায়ে পৌঁছাইলে সালাম মুর্শিদী পর্যন্ত আসতে পারলেই নিশ্চিত গোল। এভাবেই গোলের বন্যা বইয়ে দিতেন রুপসা নৈহাটির সন্তান সালাম মুর্শিদী। দেশের লীগে ২৭ গোলের সর্বোচ্চ রেকর্ড আজও কেউ ভাংতে পারেন নি, এমনকি আসলাম, সালাহউদ্দিনের মতো তারকা খেলোয়াড়রাও।

সেই সালাম মুর্শিদী আজ দেশের শীর্ষ ব্যবসায়ী। হাজার কোটি টাকার মালিক। নিজেদের ব্যবসায়িক গ্রুপের স্থাবর সম্পত্তির পরিমান সাত হাজার কোটি টাকার উপরে। সর্বোচ্চ কর দাতা হওয়ায় কর বাহাদুর খেতাব পেয়েছেন। দেশের সিআইপি। খুলনা- ৪ আসনের এমপি। যে সালাম মুর্শিদী এক সময়ে প্রতিপক্ষের ডিফেন্সের কাছে আতংক ছিলেন তিনিই আজ নীরব দর্শক। অতিথি হিসাবে যেমন খেলা দেখেছেন, তেমনি তাদের পুরস্কৃত করেছেন এমপি হিসাবে।

রুপসাবাসী ধন্য, এক সময়ের তারকা খেলোয়াড় সালাম মুর্শিদী আজ তাদের মাঠেই দর্শক, এমপি হিসাবে, অভিভাবক হিসাবে, এলাকার সন্তান হিসাবে।
সালাম মুর্শিদীর জন্য এ এক নস্টালজিক। পাশের জাবুসা মাঠেই এক সময়ে সালাম মুর্শিদী খ্যাপ খেলে মাত্র ১০০ টাকা পেয়েছিলেন, এটা তারকা হবার আগের কথা, আর আজ সাফল্য, কি খেলাধুলা? কি পরিবারে? কি ব্যবসায়? কি রাজনীতিতে? সবখানেই সাফল্য, শুধুই সাফল্য। বাংলা সিনামার মতোই গল্প।
স্যালুট সালাম মুর্শিদী!!

লেখকঃ শাহীন রহমান,সম্পাদক, প্রথম সময় ডটকম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *