খুলনাঃ দাকোপে প্রচার প্রচারনায় ব্যস্ত চেয়ারম্যান প্রার্থীরা

অনলাইন ডেস্কঃ

প্রথম ধাপের স্থগিত হওয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন আগামী ২০ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এ লক্ষে খুলনার দাকোপে প্রচার প্রচারনায় ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন সকল প্রার্থীরা। এ উপজেলার ৯টি ইউনিয়নে ৩৪ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এর মধ্যে ৩ নম্বর লাউডোব ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শেখ যুবরাজ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন। এ ছাড়া ২৭টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১১৬ জন নারী প্রার্থী ও ৮১টি সাধারন ওয়ার্ডে ৩৬৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, ৮টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীরা হলেন ১ নম্বর পানখালী ইউনিয়নে আ’লীগের শেখ আব্দুল কাদের প্রতীক (নৌকা), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ‘র জাহিদুল ইসলাম শেখ প্রতীক (হাত পাখা), স্বতন্ত্র সাব্বির আহমেদ প্রতীক (আনারস)।

২ নম্বর দাকোপ ইউনিয়নে আ‘লীগের বিনয় কৃষ্ণ রায় প্রতীক (নৌকা), স্বতন্ত্র সঞ্জয় কুমার রায় প্রতীক (আনারস) ও গৌতম সরকার প্রতীক (মটর সাইকেল)।

৪ নম্বর কৈলাশগঞ্জ ইউনিয়নে আ‘লীগের মিহির কুমার মন্ডল প্রতীক (নৌকা), বাংলাদেশ ওয়ার্কাস পার্টির গৌরাঙ্গ প্রসাদ রায় প্রতীক (হাতুড়ী), স্বতন্ত্র দেবব্রত সরকার প্রতীক (আনারস), চয়ন রায় প্রতীক (ঘোড়া), মন্টুলাল রায় প্রতীক (মটর সাইকেল)।

৫ নম্বর সুতারখালী ইউনিয়নে আ‘লীগের মাসুম আলী ফকির প্রতীক (নৌকা), স্বতন্ত্র জি.এম আশরাফ হোসেন প্রতীক (অটোরিক্সা), আব্দুল ওহাব গাজী প্রতীক (মটর সাইকেল), দেবপ্রসাদ বৈদ্য প্রতীক (ঘোড়া), লিয়াকত আলী সানা প্রতীক (আনারস), সাহাবুদ্দিন গাজী প্রতীক (চশমা)।

৬ নম্বর কামারখোলা ইউনিয়নে আ’লীগের পঞ্চানন কুমার মন্ডল প্রতীক (নৌকা), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ‘র আব্দুল কাদের সানা প্রতীক (হাত পাখা), স্বতন্ত্র সমরেশ চন্দ্র রায় প্রতীক (আনারস)।

৭ নম্বর তিলডাঙ্গা ইউনিয়নে আ’লীগের রনজিত কুমার মন্ডল প্রতীক (নৌকা), স্বতন্ত্র জালাল উদ্দিন গাজী প্রতীক (আনারস), অরুন প্রকৃতি রায় প্রতীক (মটর সাইকেল), তরুন রায় প্রতীক (চশমা)।

৮ নম্বর বাজুয়া ইউনিয়নে আ’লীগের মানস কুমার রায় প্রতীক (নৌকা), স্বতন্ত্র দেবপ্রসাদ গাইন প্রতীক (আনারস), রুপালী ইসলাম মির্জা প্রতীক ঘোড়া)।

৯ নম্বর বানীশান্তা ইউনিয়নে আ’লীগের সুদেব কুমার রায় প্রতীক (নৌকা), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ‘র শেখ জহিরুল ইসলাম প্রতীক (হাত পাখা), স্বতন্ত্র জগদীশ মৃধা প্রতীক ঘোড়া), সাইফুল ইসলাম প্রতীক (চশমা), সত্যজিৎ গাইন প্রতীক (মটর সাইকেল), সুধাংশু কুমার বৈদ্য প্রতীক (আনারস)।

লাউডোব ও বাজুয়া ইউনিয়নে আ‘লীগের দুই প্রার্থী বাদে সকলে বর্তমান চেয়ারম্যান। তবে অধিকাংশ স্বতন্ত্র প্রার্থীরা আওয়ামী লীগের সমার্থক এবং বিদ্রোহী প্রার্থী বলে জানা গেছে।

এসকল চেয়ারম্যান প্রার্থীরা সকাল থেকে রাত পর্যন্ত প্রচার প্রচারনায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। এছাড়া বিভিন্ন পথ সভা, সামাজিক অনুষ্ঠান, উঠান বৈঠকসহ ছোট ছোট সভায় অংশ নিয়ে ভোটারদের মন জয় করতে চেষ্টা করছেন।

চেয়ারম্যান প্রার্থীর পাশাপাশি সংরক্ষিত ও সাধারন ওয়ার্ডের প্রার্থীরাও প্রচার প্রচারনায়ও পিছিয়ে নেই। তবে বার বার নির্বাচন স্থগিতসহ বিভিন্ন কারণে সাধারণ ভোটাদের মাঝে নির্বাচন নিয়ে তেমন কোন উৎসাহ দেখা যাচ্ছে না। তা ছাড়া বিভিন্ন চায়ের দোকানেও প্রার্থী নিয়ে ভোটারদের কোন আলোচনা সমালোচনা নেই বলে একাধিক ভোটারের সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে।

এবিষয়ে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা কাজী মাহমুদ হোসেন বলেন, এবার নির্ধারিত দিনে ভোট হবে। দুই একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া সকল প্রার্থীরা নির্বাচনী আচারণ বিধি মেনে প্রচার প্রচারনা করছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *